প্রবন্ধ সুরাবই সাহেব বাড়ি

হযরত সৈয়দ শাহ কারার ফুলশাহ মগফুর (রহঃ)’র পবিত্র বাৎসরিক উরস মোবারক উদযাপন।

আজ ২২শে পৌষ ১৪২৭ বাংলা,৬ই জানুয়ারি ২০২১ রোজ বুধবার থেকে ১০ দিন ব্যাপী ঐতিহাসিক সুরাবই সাহেব বাড়ি দরবার শরীফে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে, তরফ ও সিলেট রাজ্য বিজয়ী সিপাহসালার হযরত সৈয়দ নাসির উদ্দিন (রহঃ)-এর অধ:স্তন সিংহ পুরুষ, ঐতিহ্যবাহী সুরাবই সাহেব বাড়ি দরবার শরীফের প্রতিষ্ঠাতা, হযরত সৈয়দ শাহ কারার ফুলশাহ মগফুর রাহমাতুল্লাহি আলাইহির পবিত্র বাৎসরিক উরস মোবারক। ১০ দিন ব্যাপী পবিত্র ওরশ মোবারকে মাজার শরীফ গোসল, গিলাপ ছড়ানো, যিয়ারত পাঠ, মিলাদ-মাহফিল যিকির-শ্যামা মাহফিল, মোনাজাত এবং তবারক বিতরণের মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হবে ঐতিহাসিক এই ওরশ মোবারক। তবে এ বছর করোনা ভাইরাস সংক্রমণ জনিত কারণে দেশে সৃষ্ট উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সরকারি নির্দেশ মোতাবেক বড় পরিসরে জনসমাগম করা হবে না।

সুরাবই হবিগঞ্জ জেলার অন্তর্গত সুতাং নদীর তীরে এবং সুতাং রেল ষ্টেশনের পাশে অবস্থিত প্রসিদ্ধ সুরাবই গ্রাম।সিলেট ও তরফ রাজ্য বিজয়ী সিপাহসালার সৈয়দ নাসির উদ্দিন (রহঃ) এর অধ:স্তন পুরুষ আরেফে ইরফানিয়াত মশহুর পীর হযরত সৈয়দ শাহ কারার ফুলশাহ মগফুর রাহমাতুল্লাহি তাআলা আলাইহি এখানে এসে এ বাড়ি ও ইমামবারাহ (পাক পান্জাতন মোকাম) নির্মাণ করেন এবং এখান থেকে জমিদারী দেখাশুনা করতেন, দ্বীনের দাওয়াত ও আল্লার ইবাদতে মগ্ন থাকতেন। তিনি প্রথম অত্র অঞ্চলে একাধিক ইমামবাড়া প্রতিষ্ঠা ও আনুষ্ঠানিক মহররম পালন শুরু করেন। হযরত সৈয়দ শাহ কারার ফুলশাহ মগফুর রাহমাতুল্লাহি তাআলা আলাইহির কতিপয় অলিগণকে নিয়ে এ স্থানে বসে পরামর্শ করেছিলেন। সুরা-পরামর্শ, বই-বসা। সে থেকেই এ স্থানের নাম হয় সুরাবই। তিনি সুতাং নদীর তীরে এক বাজার প্রতিষ্ঠা করেন এবং তার নামে বাজারের নাম করণ হয় “শাহজী বাজার”। বর্তমান সুতাং রেল ষ্টেশনের অতি নিকটে এ বাজার অবস্থিত। শাহজী বাজার রেল ষ্টেশনের নামকরনও শাহ করার নির্মিত বাজারে নাম অনুসারে হয়। মুলত এ স্থানের নাম ফতেপুর। সৈয়দ শাহ সুলেমান ফতেহ গাজীর (রহঃ) নাম অনুসারে নাম হয় ফতেহপুর। শাহজী বাজার নামে একটি মৌজা আছে। তার জে, এল নং-১৪৩ ৷৷ সুতাং নদীর তীরে মনোরম ছায়া ঘেরা পরিবেশে সুরাবই সাহেব বাড়ির পুরানো দেওয়াল, গেইট বাড়ির প্রাচীণত্ব বহন করছে। তার নিজ বাড়ীর সামনেই হোসাইনী মোকামের পার্শ্বে হযরত সৈয়দ শাহ কারার ফুলশাহ মগফুর রাহমাতুল্লাহি আলাইহির দরগাহ।আল্লাহর এই ওলীর বহু কারামতের কথা লোক মুখে শুনা যায়। তার আচার-আচরণ, কথা-বার্তা, চিন্তা-চেতনায় ও সর্বোপরি চারিত্রিক মাধুর্যে মুগ্ধ হয়ে এলাকাবাসী উনাকে ফুলের মত পবিত্র বলে “ফুল শাহ” উপাধিত ভুষিত করে তাই তিনি এই নামে সুপরিচিত।

হে মহান রাব্বুল আলামিন! আমাদেরকে তোমার প্রিয় মাহবুব বান্দা আউলিয়াকেরামের সোহবতে থাকার তৌফিক দান করুন। আমাদেরকে উনাদের রুহানী তাওয়াজ্জুহ ও বরকত নসীব করুন। আমাদের সকল প্রার্থনা আজ হযরত সৈয়দ শাহ কারার ফুলশাহ মগফুর রাহমাতুল্লাহি আলাইহির অসিলায় কবুল করে নিন। আমীন। আল্লাহুম্মা সাল্লি আলা মোহাম্মদ ওয়ালা আলা মোহাম্মদ।

-পীরজাদা সৈয়দ হোসাইন ঊল হক
সুরাবই সাহেব বাড়ি দরবার শরীফ
শাহজি বাজার(সতাং), শায়েস্তাগন্জ,হবিগঞ্জ।

 

মতামত দিন