প্রবন্ধ

আকল শরীয়ত আর ইশক মারেফত!

ইব্রাহীম আঃ কে গলায় রশি বেধে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, গলায় রশি বেঁধেছে নমরুদ (পাঠক গলায় রশি বাঁধলে তাতে হুজ্জাতে খোদার ইজ্জত যায়না এ ঘটনা টা তার প্রমান, তবে হ্যা, যে বা যারা রশি বাধে সে বা তারা নমরুদ নিশ্চয়ই। আমার মাওলা আলী আঃ কেও নমরুদ ই রশি বেধে টেনে নিয়ে গিয়েছিলো।) টানতে টানতে ইব্রাহীম আ. কে আগুনে ফেলা হলো, সেখানে উড়ে আসছে একটা হুদহুদ পাখি,তাকে জিবরাঈল আঃ জিজ্ঞেস করলেনঃ হে হুদহুদ কোথায় যাও?
হুদহুদ জবাব দিলোঃ আগুন নেভাতে।
জিবরাঈল বললোঃ কি দিয়ে নেভাবে?
হুদহুদ বললোঃ পানি দিয়ে।
জিবরাঈল জিজ্ঞেস করলেনঃ পানি কোথায়?
হুদহুদ জবাব দিলোঃআমার চঞ্চূতে।
জিবরাঈল বললেনঃ হে হুদহুদ, আগুন নয় মাইল লম্বা, তোমার ঠোঁটের এতটুকু পানিতে তো এতো ভয়ংকর আগুন নিভবে না!
তখন হুদহুদ যে জবাব টা দিলো তা ছিলো মনে রাখার মতো…
হুদহুদ বললোঃ আগুন নিভুক বা না নিভুক, আমার এই চেষ্টায় ইব্রাহীম তো বুঝবে যে আমি তার পক্ষে, নমরুদের পক্ষে নই! সুবাহান আল্লাহ!
জিবরাঈল যা বলছিলো তা ছিলো আকলের কথা, আর হুদহুদ যা বলছিলো তা ছিলো ইশকের কথা। আকল শরীয়ত আর ইশক মারেফত! আপনার চোখের একফোঁটা পানিতে কারবালার দহন নিভবে না হে মুসলিম, কিন্তু তাতে হুসাইন জানবে যে আপনি হুসাইনের পক্ষের লোক, এজিদের পক্ষের নন।

—ভাব পাগলা আব্দুল্লাহ


সিপাহসালার | ইনস্টিটিউশন | আগস্ট ২০২০এস এইচ হক

মতামত দিন