নামাজ

নামাজ-এ জাফরে তাইয়ার পড়া।

নামাজ-এ জাফরে তাইয়ার পড়া।

নামাজ-এ জাফরে তাইয়ার পড়া।

[এই নামাজটি শেখ ইমাম রেযা (আঃ) হতে বর্ণনা করেছেন।]

হযরত জাফর তৈয়ার (রা.) সম্পর্কিত বিশেষ মুস্তাহাব নামাজটি ৪ রাকাত। প্রথম রাকাতে সুরা ফাতিহার পরে সুরা ‍যিলযাল পাঠ করতে হবে তারপর ১৫ বার তসবিহে আরবাআ পাঠ করতে হবে। দ্বিতীয় রাকাতে সুরা ফাতিহার পরে সুরা আদিয়াত পাঠ করতে হবে তারপর ১৫ বার তসবিহে আরবাআ পাঠ করতে হবে। তারপর রুকু অবস্থায় ১০ বার তসবিহে আরবাআ পাঠ করতে হবে। রুকু থেকে দাড়িয়ে ১০ বার তসবিহে আরবাআ পাঠ করতে হবে। প্রথম সিজদাতে ১০ বার তসবিহে আরবাআ পাঠ করতে হবে। প্রথম সিজদা থেকে উঠে বসার পরে ১০ বার তসবিহে আরবাআ পাঠ করতে হবে। দ্বিতীয় সিজদাতে ১০ বার তসবিহে আরবাআ পাঠ করতে হবে। দ্বিতীয় সিজদা থেকে উঠে বসার পরে ১০ বার তসবিহে আরবাআ পাঠ করতে হবে।

তসবিহে আরবাআ:

سُبْحَانَ اللَّهِ وَ الْحَمْدُ لِلَّهِ وَ لاَ إِلَهَ اِلاَّ اللَّهُ وَ اللَّهُ أَكبَرُ .

উচ্চারণ: সুবহানাল্লাহি ওয়াল হামদুলিল্লাহি ওয়া লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবার।

সূরা যিলযাল বাংলা উচ্চারণ:

إِذَا زُلْزِلَتِ ٱلْأَرْضُ زِلْزَالَهَا وَأَخْرَجَتِ ٱلْأَرْضُ أَثْقَالَهَا وَقَالَ ٱلْإِنسَٰنُ مَا لَهَا يَوْمَئِذٍ تُحَدِّثُ أَخْبَارَهَا بِأَنَّ رَبَّكَ أَوْحَىٰ لَهَا يَوْمَئِذٍ يَصْدُرُ ٱلنَّاسُ أَشْتَاتًا لِّيُرَوْا أَعْمَٰلَهُمْ فَمَن يَعْمَلْ مِثْقَالَ ذَرَّةٍ خَيْرًا يَرَهُۥ وَمَن يَعْمَلْ مِثْقَالَ ذَرَّةٍ شَرًّا يَرَهُۥ.

উচ্চারণঃ ইযা-যুলযিলাতিল আরদুযিলযা-লাহা-। ওয়া আখরাজাতিল আরদুআসকা-লাহা-। ওয়া কা-লাল ইনসা-নুমা-লাহা-। ইয়াওমাইযিন তুহাদ্দিছু আখবা-রাহা-। বিআন্না রাব্বাকা আওহা-লাহা-। ইয়াওমাইযিইঁ ইয়াসদুরুন্না-সুআশতা-তাল লিউউরাও আ‘মা-লাহুম। ফামাইঁ ইয়া‘মাল মিসকা-লা যাররাতিন খাইরাইঁ ইয়ারাহ। ওয়া মাইঁ ইয়া‘মাল মিসকা-লা যাররাতিন শাররাইঁ ইয়ারাহ।

সূরা আল-আদিয়াত আরবি উচ্চারণ:

وَٱلْعَٰدِيَٰتِ ضَبْحًا. فَٱلْمُورِيَٰتِ قَدْحًا. فَٱلْمُغِيرَٰتِ صُبْحًا. فَأَثَرْنَ بِهِۦ نَقْعًا. فَوَسَطْنَ بِهِۦ جَمْعًا.إِنَّ ٱلْإِنسَٰنَ لِرَبِّهِۦ لَكَنُودٌ. وَإِنَّهُۥ عَلَىٰ ذَٰلِكَ لَشَهِيدٌ. وَإِنَّهُۥ لِحُبِّ ٱلْخَيْرِ لَشَدِيدٌ. أَفَلَا يَعْلَمُ إِذَا بُعْثِرَ مَا فِى ٱلْقُبُورِ. وَحُصِّلَ مَا فِى ٱلصُّدُورِ. إِنَّ رَبَّهُم بِهِمْ يَوْمَئِذٍ لَّخَبِيرٌ.

উচ্চারণঃ ওয়াল ‘আ-দিয়া-তি দাবহা-। ফাল মূরিয়া-তি কাদহা-। ফাল মুগীরা-তি সুবহা-। ফাআসারনা বিহী নাক‘আ-। ফাওয়াসাতানা বিহী জাম‘আ-। ইন্নাল ইনসা-না লিরাব্বিহী লাকানূদ। ওয়া ইন্নাহূ‘আলা-যা-লিকা লাশাহীদ। ওয়া ইন্নাহূলিহুব্বিল খাইরি লাশাদীদ। আফালা-ইয়া‘লামুইযা-বু‘সিরা মা-ফিল কুবূর। ওয়া হুসসিলা মা-ফিসসুদূর, ইন্না রাব্বাহুম বিহিম ইয়াওমাইযিল্লাখাবীর।

উল্লেখিত পদ্ধতিতে প্রত্যেক রাকাতে নামাজ পড়তে হবে। পরবর্তি দ্বিতীয় রাকাতে সুরা ফাতিহার পরে সুরা ফাতহ এবং ১৫ বার তসবিহে আরবাআ পাঠ করতে হবে। দ্বিতীয় রাকাতে সুরা ফাতিহার পরে সুরা ইখলাস পাঠ করতে হবে। তারপর উল্লেখিত পদ্ধতিতে রুকু, সিজদা পাঠের মাধ্যমে নামাজকে শেষ করতে হবে।

মতামত দিন